বিভাগ আমাদের সৌরজগৎ

0

টিটিয়াস-বোড এর নীতিঃ প্রকৃতিতে গাণিতিক সুষমতার একটি উদাহরণ

পিথাগোরাসের দর্শন ছিলো পুরোপুরি গণিত নির্ভর। তিনি মনে করতেন, প্রকৃতির মধ্যে এক চমৎকার গাণিতিক সুষমতা বিদ্যমান এবং বিজ্ঞানীদের কাজ প্রকৃতির এই গাণিতিক সুষমতাকে খুঁজে বের করা। পরবর্তী বহু বিজ্ঞানী ও দার্শনিকের উপর পিথাগোরাসের এই...

0

মহাকাশে মহাত্রাসে মহাযজ্ঞ!

ভূমিকা মানুষ এক অদ্ভুত প্রাণী! প্রাণীজগতের এই একটি প্রাণীই আছে, যারা নিজেদের অস্তিত্ব নিয়ে দার্শনিক চিন্তাভাবনা করতে শিখেছে। মনুষ্য প্রজাতির জন্মলগ্ন থেকেই মানুষ ভেবে আসছে মহাবিশ্বে তারা কেন এলো, কোথা থেকে এলো, কোথায়ই বা...

0

গণিতশাস্ত্রের দুর্ধর্ষ ১০ – ৪র্থ পর্ব

(তৃতীয় পর্বের পর) ৪। কার্ল ফ্রিদরিখ গাউস (১৭৭৭ – ১৮৫৫) জার্মান গণিতবিদ, পদার্থবিদ ও জ্যোতির্বিজ্ঞানী। ১৭৭৭ সালে জার্মানির ‘ব্রহনশোওয়িক (Braunschweig বা Brunswick)’ নামক শহরে জন্মগ্রহণ করেন কার্ল ফ্রিদরিখ গাউস। বেশ দরিদ্র পিতা-মাতার ঘরেই জন্ম...

0

ধূমকেতু, গ্রহাণু, আর উল্কার মধ্যে পার্থক্য

ধূমকেতু (Comet) ধূমকেতু হচ্ছে সূর্যকে কেন্দ্র করে ঘুরতে থাকা এক ধরণের লেজ বিশিষ্ট বস্তু যা শূন্য থেকে হঠাৎ উদয় হয়ে আবার রহস্যজনকভাবে শূন্যেই মিলিয়ে যায়। সৌরজগতের অন্যান্য বস্তুর মত এরা পাথর দিয়ে তৈরি নয়,...

2

গণিতশাস্ত্রের দুর্ধর্ষ ১০ – ১ম পর্ব

গণিত! মহাবিশ্বের বিশাল কর্মযজ্ঞের পেছন-কার প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ। বিশ্বব্রহ্মাণ্ডের স্বরূপ উদঘাটনকারী ব্যক্তিদের জন্যে গুরুত্বপূর্ণ একটা শাস্ত্র। অত্যন্ত জ্ঞানী এবং বিশ্বব্রহ্মাণ্ডের স্বরূপ নিয়ে মোটামুটি চিন্তিত, এমন গুটিকয় ব্যক্তির প্রথম ভালোবাসা। আর বাকি সাধারণ আই-কিউ বিশিষ্ট ও...

0

আইনস্টাইনীয় বর্ণমালা

অ্যালবার্ট আইনস্টাইন, জগদ্বিখ্যাত বিজ্ঞানী। তাকে নতুন করে পরিচয় করিয়ে দেয়ার কিছু নেই। তাঁর সম্মানে আজ আমরা আইনস্টাইনীয় vocabulary শিখবো। A- Albert Einstein, ১৯১৫ সালের নভেম্বরে আইনস্টাইন তাঁর বিখ্যাত ফিল্ড ইক্যুয়েশন প্রুসিয়ান একাডেমীতে জমা দেন। যা পরে...

1

জুপিটার(বৃহস্পতি) নিয়ে কিছু কথা

সবচেয়ে, সবচাইতে বড় গ্রহ আমাদের সোলার সিস্টেমে এই জুপিটার। সূর্য থেকে পঞ্চম কক্ষপথে অবিরাম ঘূর্ণনরত অবস্থায় আছে এটি। খ্রিস্টপূর্ব সপ্তম অথবা অষ্টম শতাব্দীতে ব্যাবিলনীয়ান জ্যোতির্বিজ্ঞানীরা সর্বপ্রথম এই গ্রহ অবলোকন করেন। এটি একটি গ্যাসীয় গ্রহ। এর বায়ুমণ্ডলের...

4

বিগ ব্যাং থেকে বর্তমান মানব সভ্যতা এক নজরে – দ্বিতীয় পর্ব

‘বিগ ব্যাং’, মহাবিশ্বের সূচনা, মহাবিশ্বের সব কিছুর উৎপত্তি। সকল পদার্থ ও শক্তির সৃষ্টি। আজ থেকে প্রায় ১৪০০ কোটি বছর আগে পরমাণুর চেয়েও বহুগুণ ক্ষুদ্র প্রায় শূন্য আয়তনে ঘটা একটি বিস্ফোরণের মধ্য দিয়ে এই মহাবিশ্বের সৃষ্টি। ‘বিগ...

0

বিগ ব্যাং থেকে বর্তমান মানব সভ্যতা এক নজরে – প্রথম পর্ব

‘বিগ ব্যাং’, মহাবিশ্বের সূচনা, মহাবিশ্বের সব কিছুর উৎপত্তি। সকল পদার্থ ও শক্তির সৃষ্টি, সময় ও স্থানের সৃষ্টি যাকে বলা হয় ‘স্পেসটাইম’ বা স্থান-কাল। আজ থেকে প্রায় ১৪০০ কোটি বছর আগে পরমাণুর চেয়েও বহুগুণ ক্ষুদ্র...

6

মহাশূন্যের গোলকধাঁধা এবং সাধারণ কিছু ভুল ধারণা

“মহাশূন্য শব্দটা বলতে আমরা কী বুঝি?” একবার এক পরিচিত চা-বিক্রেতাকে এই প্রশ্নটা জিজ্ঞেস করেছিলাম। উদ্দেশ্য ছিলো- একজন বিজ্ঞান-যাত্রী হিসেবে সমাজে বিজ্ঞানমনস্ক চিন্তা-ভাবনা ছড়িয়ে দেয়া, যাতে পরে সবার সামনে ঘটনাটা বলে একটু ভাব নিতে পারি।...