আমুর লেপার্ডঃ পৃথিবীর সবচেয়ে দুর্লভ প্রজাতির বিড়াল

কী আদুরে ভাবভঙ্গী!

কী আদুরে ভাবভঙ্গী!

আমুর লেপার্ড / Amur leopard (Panthera pardus orientalis) হলো লেপার্ডের এক প্রজাতি যা ১৯৯৬ সাল থেকে বিলুপ্ত প্রায় (Critically Endangered) ঘোষিত হয়ে আসছে। এদের পাওয়া যায় শুধুমাত্র রাশিয়ার দক্ষিণ-পূর্বের প্রিমোরি অঞ্চলে এবং চীনের জিলিন প্রদেশে।

২০০৭ সালের এক হিসেবে মাত্র ১৯-২৬ টি আমুর লেপার্ডকে জীবিত পাওয়া গিয়েছিলো। তবে সুখবর হল, ২০১৫ সালের ফেব্রুয়ারির এক শুমারিতে দেখা গেছে, রাশিয়ায় আমুর লেপার্ডের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে কমপক্ষে ৫৭ টি এবং চীনে ১২ টি। তারপরও এরাই পৃথিবীর সবচেয়ে দুর্লভ প্রজাতির বিড়াল।

আমুর লেপার্ড হল Panthera pardus এর একমাত্র উপ-প্রজাতি যারা ঠাণ্ডা এবং তুষারপাতপ্রবণ এলাকার সাথে নিজেদের খাপ খাইয়ে নিয়েছে। অন্য উপ-প্রজাতিরা এই কাজটি করতে পারে নি। ভ্রু কুঁচকে ভাবতে পারেন, স্নো লেপার্ডও তো এই ধরণের পরিবেশের সাথে অভিযোজিত হয়েছে। তাহলে কেন শুধু আমুর লেপার্ডকে কৃতিত্ব দিচ্ছি?

মজা এখানেই।

নামের মধ্যে “স্নো” বা “লেপার্ড” থাকলেও, কিংবা বাসস্থান একই হলেও স্নো লেপার্ডরা ভিন্ন উপ-প্রজাতি। তাই আমুর লেপার্ডের সাথে তাদের তুলনা করা যাবে না।

মায়ের সাথে শাবকের হুটোপুটি

মায়ের সাথে শাবকের হুটোপুটি

অন্যান্য উপ-প্রজাতি থেকে কেন এরা আলাদা?

আলাদা কারণ এদের দেহে আছে দাগযুক্ত পুরু এবং নরম লোমের আবরণ। দাগের প্যাটার্নের দিক থেকে সকল লেপার্ডের মধ্যে এরাই সবচেয়ে বেশী বৈচিত্র্যের অধিকারী।

Comments

আপনার আরো পছন্দ হতে পারে...

মন্তব্য বা প্রতিক্রিয়া জানান

সবার আগে মন্তব্য করুন!

জানান আমাকে যখন আসবে -
avatar
wpDiscuz